নওগাঁয় প্রধান শিক্ষককে লাঞ্ছিতের ঘটনায় বিচার দাবিতে শিক্ষকদের মানববন্ধন

জি,এম মিঠন, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধিঃ নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার কাদিয়াল-নাউরাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে লাঞ্ছিতের প্রতিবাদে নওগাঁয় মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। রবিবার বেলা ১১টার দিকে নওগাঁ শহরের মুক্তির মোড়ে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি নওগাঁ জেলা শাখার আয়োজনে এ কর্মসূচী পালিত হয়।
মানববন্ধন শেষে প্রধান শিক্ষক শিল্পী রানীকে লাঞ্ছিতের অভিযোগে মহাদেবপুর উপজেলার রাইগাঁ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মঞ্জুর আলমকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে স্বারকলিপি প্রদান করেন।
জেলা সরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি মনসুর আলী দেওয়ান মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, শিল্পী রানীর স্বামী রাইগাঁ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাশেদুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় কমিটির জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি আব্দুল হাই সিদ্দিকী, শিক্ষক সমিতির নওগাঁর সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান, যুগ্ন সম্পাদক জহুরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ। এই কর্মসূচীতে নওগাঁ সদরসহ জেলার ১১ টি উপজেলার শিক্ষকবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।
বক্তারা বলেন, মানুষ গড়ার কারিগর শিক্ষককে লাঞ্চিত করার ঘটনা ন্যাক্কারজনক। বাজারের মধ্যে জনসম্মুখে একজন শিক্ষককে মারপিট করা হলেও অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত কোনো প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। ওই ঘটনায় চেয়ারম্যান ও তাঁর সহযোগীর বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার পরেও এক মাস অতিবাহিত হলেও তাঁদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ। তাঁরা অবিলম্বে দোষীদের গ্রেফতার করে বিচারের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ার দাবি জানান।
মানববন্ধন শেষে এ ঘটনায় সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে শিক্ষক সমিতির নেতারা জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে স্বারকলিপি প্রদান করেন। স্বারকলিপিতে সরকারি কাজে বাধা প্রদান ও প্রধান শিক্ষককে লাঞ্চিতের অভিযোগে অভিযুক্ত চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ ও তাঁকে বরখাস্তের দাবি জানানো হয়।
গত ৮ সেপ্টম্বর কাদিয়াল-নাউরাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির নির্বাচনে সভাপতি পদে চেয়ারম্যানের মনোনীত প্রার্থী পরাজিত হয়। এতে ওই দিন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শিল্পী রানীকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেন রাইগাঁ ইউপির চেয়ারম্যান মঞ্জুর আলম। এ ঘটনার জেরে ১২ সেপ্টেম্বর উপজেলার মাতাজী হাট বাজারের মধ্যে জনসম্মুখে প্রধান শিক্ষক শিল্পী রানীকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন চেয়ারম্যান ও তাঁর সহযোগী আওয়ামী লীগ নেতা আবু মুসা। এ ঘটনায় গত ১৭ সেপ্টেম্বর প্রধান শিক্ষক মহাদেবপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরর এক মাস হতে চললেও অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনুনাগ ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় গতকাল শিক্ষকরা এই কর্মসূচি পালন করেন।

Share Button

About the Author