Published On: Wed, Aug 17th, 2016

শ্রীলঙ্কার কাছে হোয়াইটওয়াশ হলো অস্ট্রেলিয়া

রঙ্গনা হেরাথের বোলিং বীরত্বে টেস্টের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে কলম্বোর মাটিতে মিশিয়ে দিল শ্রীলঙ্কা। এই প্রথম অস্ট্রেলিয়াকে হোয়াইওয়াশ করলো স্বাগতিকরা। গড়লো ইতিহাস। তৃতীয় টেস্টের শেষদিনের দুপুরে প্রতিপক্ষকে ১৬৩ রানের হার উপহার দিয়েছে তারা। সেই সাথে তিন ম্যাচের মুরালি-ওয়ার্ন সিরিজ ৩-০ তে জিতে নিয়েছে। প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেটর পর দ্বিতীয় ইনিংসে ৭ উইকেট নিয়েছেন হেরাথ। ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেরা ম্যাচ ফিগারে তিনি ধসিয়ে দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়াকে।

শেষ দিনের ঘণ্টা খানেক ব্যাট করে ৮ উইকেটে ৩৪৭ রানে ইনিংস ঘোষণা করে শ্রীলঙ্কা। তাতে অস্ট্রেলিয়ার সামনে ৩২৪ রানের টার্গেট দাঁড়ায়। এশিয়ায় চতুর্থ ইনিংসে এত রান তাড়া করে জেতার রেকর্ড নেই অস্ট্রেলিয়ার। তার ওপর বিধ্বংসী হয়ে ওঠেন বাঁ হাতি স্পিনার হেরাথ। তাতে চা বিরতির আগে ১৬০ রানেই গুটিয়ে যায় অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস। ৬৪ রানে ৭ উইকেট হেরাথের। তিন ম্যাচের সিরিজে ২৮ উইকেট নিয়েছেন হেরাথ। আর বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ের ৭ নম্বর দলের কাছে হোয়াইওয়াশ হয়েছে ১ নম্বর অস্ট্রেলিয়া। এর আগে দেশের মাটিতে কেবল জিম্বাবুয়ে, বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৩-০তে জয়ের ইতিহাস ছিল শ্রীলঙ্কার। আর উপমহাদেশের দলের বিপক্ষে টানা তৃতীয় অ্যাওয়ে সিরিজ হারলো অস্ট্রেলিয়া।

খুব স্বাভাবিকভাবে ম্যাচের সেরা হয়েছেন হেরাথ। এবং এই সিরিজের সেরা খেলোয়াড়ও তিনি। হেরাথ নতুন বল হাতে নেওয়ার আগে শেষ দিনে লঙ্কান ব্যাটসম্যান ধনঞ্জয় ডি সিলভা ৬৫ রানে করে অপরাজিত থাকেন। তাতে লিড বাড়ে লঙ্কানদের।

অস্ট্রেলিয়ার এমন পতন হবে তা অবশ্য বোঝা যায়নি শুরুতে। ৭৭ রান করেছিল তারা উদ্বোধনী জুটিতে। ২ উইকেট নেওয়া অফ স্পিনার দিলরুয়ান পেরেরা শন মার্শকে (২৩) আউট করলেন। তারপর একই ওভারে অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ (৮) ও অ্যাডাম ভোজেসকে (১০) আউট করেন। পেরেরা তুলে নেন সর্বোচ্চ ৬৮ রান করা ডেভিড ওয়ার্নারকে। ১১৪ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ধুকতে থাকা অস্ট্রেলিয়াকে ধাক্কা দিয়ে খাঁদে ফেলেছেন হেরাথই। বড় লজ্জা পেয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

Share Button

About the Author