Press "Enter" to skip to content

‘নিয়তি’ দর্শকদের কাঁদাবে পরিচালকের আশা

আরিফিন শুভ ও জলি অভিনীত ‘নিয়তি’ দেখতে হলে সঙ্গে রাখতে হবে টিস্যু পেপার! ছবিটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া তো ভাবছিলো, প্রতিটি সিনেমা হলে টিস্যু রাখার ব্যবস্থা করবে।

রোববার (৭ আগস্ট) সন্ধ্যায় ঢাকা ক্লাবে আয়োজিত মিট দ্য প্রেস অনুষ্ঠানে মজার ভাবনাটি ভাগাভাগি করেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার প্রযোজক আব্দুল আজিজ। তিনি বলেন, ‘কলকাতায় গত ১০ জুন মুক্তির পর দর্শকরা ছবিটি দেখে কেঁদেছেন।

আশা করছি, এখানকার দর্শকরাও সমান আবেগপ্রবণ হয়ে উঠবেন। তাই প্রথমে ভেবেছিলাম প্রত্যেক সিনেমা হলে টিস্যু রাখার ব্যবস্থা করবো! কিন্তু পরিবেশনার পর হিসাব করে দেখলাম এতো টিস্যু দেওয়া সম্ভব হবে না। আমরা আশা করছি, দর্শকরাই টিস্যু বা রুমাল নিয়ে সিনেমা হলে ‘নিয়তি’ দেখতে যাবেন।’

অনুষ্ঠানে ছিলেন শুভ ও জলি এবং ছবিটির পরিচালক জাকির হোসেন রাজু। তাদেরও আশা, ‘নিয়তি’ দর্শকদের কাঁদাবে। শুভ বললেন, ‘‘এ ছবি আমাদের সন্তান। অনেক কষ্টে লালন-পালনের পর মুক্তি পেতে যাচ্ছে এটা। দর্শকরা ভালো গল্প পেলে অবশ্যই হলমুখী হবেন, তার বড় প্রমাণ মিলেছে গত ঈদে। রেকর্ড পরিমাণ দর্শক ঈদে ছবি দেখেছেন। আশা করছি, ‘নিয়তি’র গল্পও দর্শকপ্রিয়তা অর্জন করবে।’’

পরিচালক জাকির হোসেন রাজু রসিকতার সুরে বলেন, ‘এই ছবি হিট হলে শুভ তিনটি ছবি পারিশ্রমিক ছাড়াই করবে বলেছে! গল্পটা সত্যিকার অর্থেই দর্শকের হৃদয় স্পর্শ করার মতোই।’

নায়িকা জলি বললেন, ‘‘এ ছবিই আমার ভবিষ্যৎ নিয়তি! এটাকে কখনও ছবি বলি না। আমার প্রথম ছবি ‘অঙ্গার’ হয়তো ভুলে ভরা ছিলো। তবে ‘নিয়তি’র জন্য খেটেছি, ভালো করার চেষ্টা ছিলো। শতভাগ না হলেও ৯৫ ভাগ আমার সেরাটুকু দিয়েছি এ ছবির জন্য।’’

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে ছিলেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি দেলোয়ার জাহান ঝন্টু, মহাসচিব মুশফিকুর রহমান গুলজার, পরিচালক সোহানুর রহমান সোহান প্রমুখ।

আগামী ১২ আগস্ট ‘নিয়তি’ মুক্তি পাচ্ছে বাংলাদেশে। এতে আরও অভিনয় করেছেন ঈশানী, রেসি, মৌসুমী সাহা, সুপ্রিয় দত্ত প্রমুখ। ছবিটি প্রযোজনার সঙ্গে যুক্ত আছে কলকাতার এসকে মুভিজও।

Share Button

Comments are closed.