Press "Enter" to skip to content

বরিশালে জেলা ইজতেমা শুরু

স্টাফ রিপোর্টার, ডেইলী খবর: বরিশাল নগরীর নবগ্রাম সড়কের সরদারপাড়ায় প্রথমবারের মত বিশ্ব ইজতেমার আঞ্চলিক পর্ব বা জেলা ইজতেমা শুরু হয়েছে। ফজরবাদ মাওলানা হাবিবউল্লাহর বয়ানের মধ্য দিয়ে বৃহস্পতিবার থেকে তিন দিনের ইজতেমা আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়। ইজতেমার মাঠের জিম্মাদার আবুল খায়ের খান হামিম বলেন, ‘রাজধানীর টঙ্গী বিশ্ব ইজতেমায় মানুষের চাপ কমাতে বরিশালসহ ৩২ জেলায় আগাম ইজতেমার আয়োজনের সিদ্ধান্ত হয়। যার ধারাবাহিকতায় বরিশালে বৃহস্পতিবার থেকে তিন দিনের বিশ্ব ইজতেমা শুরু হয়েছে। এ জন্য সরদারপাড়ায় ১০ একর জমিতে প্যান্ডেল করা হয়েছে। ইজতেমা মাঠে প্রবেশের জন্য ৫টি প্রবেশদ্বার ও মাঠে বসার স্থানও ভাগ করে দেওয়া হয়েছে। বরিশালের বিভিন্ন উপজেলার জন্য ১০টি ও বরিশাল নগরীর জন্য ১৮টি স্থান নির্ধারিত রয়েছে। ইজতেমায় এরই মধ্যে ইন্দোনেশিয়া, ইয়েমেন, সিরিয়া, দক্ষিণ অফ্রিকা ও ভারত থেকে ৪৫ জন মেহমান এবং কাকরাইল মসজিদের বক্তারা উপস্থিত হয়েছেন। ইজতেমায় আড়াই লাখ মুসল্লি বয়ান শুনতে পারবেন।’ ইজতেমা মাঠের সার্বিক তত্ত্বাবধান ও পানির দায়িত্বে থাকা নগরীর ১৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর গাজী আখতারুজ্জামান হিরু বলেন, ‘সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে ৩০০ এনার্জি বাল্বের সংযোগ দেওয়া হয়েছে। খাবার পানি ও ওজু করার জন্য অস্থায়ী পানির লাইন স্থাপন ও বাথরুমের জন্য ১২টি শ্যালো টিউবওয়েল বসানো হয়েছে। এ ছাড়াও বিপুলসংখ্যক পরিচ্ছন্নতাকর্মী ও একটি মেডিক্যাল টিম ইজতেমা মাঠে রাখা হয়েছে। পিডিবি এবং পল্লী বিদ্যুৎ থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থা করেছে। স্থানীয় ও আশপাশের ৫টি বড় পুকুরে ঘাট র্নিমাণ করে গোসল এবং ওজু ও টয়লেটের ব্যবস্থা করা হয়েছে মুসল্লিদের জন্য।’ জেলা প্রশাসক ড. গাজী সাইফুজ্জামান জানান, ইজতেমায় নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নগর পুলিশের মুখপাত্র আবু সাইদ জানান, ইজতেমার নিরাপত্তায় ৫০০ পুলিশ সদস্য মোতায়েন আছে। একটি ওয়াচ টাওয়ার ও কন্ট্রোলরুম স্থাপন করা হয়েছে।

Share Button