Published On: Sun, Dec 6th, 2015

সাপের পা হারানোর কারণ জানা গেল গবেষণায়

অনেক আগে সাপের পা থাকলেও কালের বিবর্তনে তা হারিয়ে গেছে। কিন্তু কিভাবে সে পা হারাল। এবার নয় কোটি বছর আগের এক জীবাশ্মে পাওয়া গেল সেই প্রশ্নের উত্তর। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে টেলিগ্রাফ ও দ্য হিন্দু।

গবেষকরা জানিয়েছেন, গর্তে বসবাস ও শিকার করার কারণেই সাপের পায়ের প্রয়োজনীয়তা ফুরিয়ে গেছে। আর এতেই বিবর্তনের ধারায় বিলুপ্ত হয়ে গেছে সেই পা।
অতীতে ধারণা করা হত, সাপের পা হারানোর কারণ সমুদ্রে বসবাস করতে গিয়ে পায়ের প্রয়োজনীয়তা হারানো। তবে নতুন গবেষণাটি সেই তত্ত্ব নাকচ করে দিয়েছে।
যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অব এডিনবরা ও যুক্তরাষ্ট্রের আমেরিকান মিউজিয়াম অব ন্যাচারাল হিস্টরি সম্প্রতি সিটি স্ক্যানিং প্রযুক্তি ব্যবহার করে সাপের এ রহস্যের সমাধান করেছেন। এ ক্ষেত্রে তাঁরা নমুনা হিসেবে নিয়েছেন ৯ কোটি বছর আগের একটি সরীসৃপ প্রাণীর জীবাশ্ম।
গবেষকদের প্রধান ড. হংগিউ ওয়াই বলেন, ‘সাপ পা হারাল কিভাবে-এটা বিজ্ঞানীদের কাছে খুবই রহস্যময় একটা ব্যাপার। আমাদের কাছে মনে হচ্ছে, প্রাণীটির পূর্বপুরুষরা যখন গর্তে বসবাস শুরু করে, তখনই তাদের পায়ের প্রয়োজনীয়তা ফুরিয়ে যায়।’
সাপের মতো প্রাণীদের অতীতে পা ছিল। কিন্তু কেন এ পা বিলুপ্ত হয়ে গেল? কিছুদিন আগেও বিজ্ঞানীরা ধারণা করতেন সাপ যখন পানিতে বসবাস শুরু করে তখন তাদের পা অপ্রয়োজনীয় হয়ে পড়ে। আর এতেই তাদের এ অঙ্গটি বিলুপ্ত হয়। যদিও সম্প্রতি এ তত্ত্বকে নস্যাৎ করে দিয়েছেন গবেষকরা।
সাপ যখন তাদের লম্বা দেহ নিয়ে মাটির সরু গর্তে প্রবেশ করা শুরু করে তখন আর তাদের পায়ের প্রয়োজন হয় না। বরং সরু গর্তের ভেতর চলাচলে পা সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। আর এখনও সাপ প্রধানত মাটির গর্তেই বাস করে ও সেখানে শিকার করে খায়। আর এ কারণেই সাপের পা প্রয়োজন হয় না।
এতে জানা গেছে, তারা মাটির সরু গর্তে প্রবেশ করার পরই এ অঙ্গটির প্রয়োজনীয়তা ফুরিয়েছে। পরবর্তীতে অবশ্য কিছু সাপ গাছে ও অন্য স্থানে বসবাস শুরু করলেও তা বেশিদিন আগে হয়নি বলে মনে করছেন গবেষকরা।

 

Share Button

About the Author

-